আমাদের কথা খুঁজে নিন

   

ছেলেদের ২০টি বেহায়া অভ্যাস

চলতি পথে... ●সুন্দরী মেয়ে দেখলেই গায়ে পড়ে কথা বলা। ● গার্লস স্কুল,কলেজের সামনে সিগারেট হাতে নিয়ে শার্টের বোতাম উপরের কয়েকটা খুলে ফকিরের মত দাঁড়িয়ে থাকা। ●শপিং সেন্টার,গাড়ি,রেস্তেরায় মেয়েদের টিজিং করা। ●বয়স্ক কোন আংকেলকে সিট ছেড়ে না দিয়ে বসে থাকা কিন্তু সুন্দরী কোন মেয়ে গাড়িতে উঠতে দেখলেই সিট ছেড়ে পড়িমরি করে ডেকে সিট দেওয়া। ●গাড়িতে খালি সিট থাকা সত্বেও কোন মেয়ের পাশের সিট খালি থাকলে সে সিটে তড়িঘড়ি করে বসে যাওয়া।যদি আগে অন্য কেউ বসে যায় এই ভয়ে ! ●মেয়েদের সামনে নিজেকে হিরো সাজাতে গিয়ে রিক্সাওয়ালা,গাড়ির হেলপার,সিএনজিওয়ালা,হকারদের গায়ে হাত তোলা। মোবাইল.. ●পরিচয়ের কয়েকমিনিটের মধ্যেই মোবাইল নাম্বার চাওয়া। ●বন্ধুদের মোবাইল থেকে,মোবাইলের ফ্লেক্সিলোডের দোকান থেকে মেয়েদের নাম্বার চুরি করা। ●নাম্বার এদিক সেদিক করে রং নাম্বারে ডায়াল করে মেয়ে খোঁজা। ●মেয়েদের মোবাইলে বারবার ফোন করে বিরক্ত করা। ●ভাব নেওয়ার জন্য মেয়েদের সামনে রিংটোন বাজিয়ে কল আসার ভান করে কথা বলা। ●পাবলিক টয়লেটে,কলেজের বেঞ্চে,গাছে,দেয়ালে,বাসের সিটে নিজের মোবাইল লিখে রাখা। ফেসবুক.. ●বন্ধুদের ফ্রেন্ডলিষ্টের সুন্দরী মেয়েদের আইডি নিয়ে ফ্রেন্ড রিকোয়েষ্ট পাঠিয়ে তীর্থের কাকের মত অপেক্ষা করা। ●ফেসবুকে মেয়েদের স্ট্যাটাসে,ছবিতে লাজ,লজ্জার মাথা খেয়ে আজে বাজে কমেন্ট করা। ●কোন মেয়ের সাথে ঝগড়া কিংবা মনমালিন্য হলে ঐ মেয়ের ফটো চুরি করে ফেইক আইডি খোলা । ●আজে বাজে ছবি আপলোড করে সে ছবিতে মেয়েদের ট্যাগ করা। ●মেয়েদের মোবাইল নাম্বার ফেসবুক বন্ধুদের বিতরন করা। ●সুন্দরী কোন মেয়ে ফেসবুকে যাই লিখুক না কেন জোস,অসাম,হেব্বী,ওয়াও!ওয়াও সেইরম ইত্যাদি কমেন্ট করা। ব্লগ... ●মেয়েদের কয়েক লাইনের পোষ্টে ডজন ডজন কমেন্ট করা। ●মন্তব্যে ফেসবুক,ইয়াহু আইডি দেওয়া। ব্লগ নিয়ে দুটি আইডিয়া ব্লগার বাঁদর+তুমি=বাঁদরামী এর ব্লগে কে ছেলে কে মেয়ে সেটা প্রকাশের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হোক পোষ্টটি অবলম্বনে।

সোর্স: http://www.somewhereinblog.net     দেখা হয়েছে ৩৬ বার

অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কথা গুলোকেই সহজে জানবার সুবিধার জন্য একত্রিত করে আমাদের কথা । এখানে সংগৃহিত কথা গুলোর সত্ব (copyright) সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের লেখকের এবং আমাদের কথাতে প্রতিটা কথাতেই সোর্স সাইটের রেফারেন্স লিংক উধৃত আছে ।

প্রাসঙ্গিক আরো কথা
Related contents feature is in beta version.