আমাদের কথা খুঁজে নিন

   

আমি নামায পড়ি, রোযা রাখি, আল্লাহ-রাসুল মানি। এরপরও আমাকে নাস্তিক বলা হয় ! আমাকে নাস্তিক বলাতে আমার কোন আপত্তি নাই। কিন্তু নাস্তিক বলার কারণ হল- @ আমার প্রোফাইল পিক এ ঝুটি বাঁধা লম্বা চুল। তাই আমি নাস্তিক। @ আমি দাঁড়ি রাখি না, তাই আমি নাস্তিক। @ আমি গান গাই, নাচতে পছন্দ করি, তাই আমি নাস্তিক। @আমি ধর্ম ব্যাবসায়িদের মোকাবেলা ধর্ম দিয়ে করি। তাই আমি নাস্তিক। @ আমি রাজাকারের বিচার চাই, তাই আমি নাস্তিক। @ আমি বলি এক ধর্মের নারী পুরুষ অন্য ধর্মের নারী-পুরুষকে বিবাহ করতে পারবে। তাই আমি নাস্তিক। @ আমি বলি জান্নাত শুধু মুসলমানের জন্য না। অন্যান্য ধর্মের মানুষ ও জান্নাতে যাবে। তাই আমি নাস্তিক। @ আমি কবি নজরুল এ দর্শনে চলি। তাই নজরুলের মত আমিও মুরতাদ, নাস্তিক। @ আমি লালনের মত নিজেকে মুসলমান বলার আগে নিজেকে মানুষ বলি। তাই আমি নাস্তিক। @ আমি বুদ্ধের বানী স্ট্যাটাস দেই। শ্রী রাম এর কথা লিখি। রাধা-কৃষ্ণ পেইজ এ লাইক দেয়। তাই আমি নাস্তিক। @ আমার ধর্মীয় দর্শন নাকি বেশি উদার ! তাই আমি নাস্তিক। @ আমি হিন্দু বাড়িতে গিয়ে বতের ভাত খাই। তাই আমি নাস্তিক। @ আমি আল্লাহ কে ভয় করা সমর্থন করি না বরং আল্লাহ কে ভালবাসা সমর্থন করি। তাই আমি নাস্তিক ! এত এত কারণ শুনে অনেক মজা পাই। একটুকু গায়ে লাগে না আমার। কারণ আল্লাহ বলেন- "বিদ্রুপকারীর মোকাবেলায় আমি (আল্লাহই) তোমার জন্য যথেষ্ট" -- আল কোরআন। (সূরা হিজরঃ৩৫)

অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কথা গুলোকেই সহজে জানবার সুবিধার জন্য একত্রিত করে আমাদের কথা । এখানে সংগৃহিত কথা গুলোর সত্ব (copyright) সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের লেখকের এবং আমাদের কথাতে প্রতিটা কথাতেই সোর্স সাইটের রেফারেন্স লিংক উধৃত আছে ।

প্রাসঙ্গিক আরো কথা
Related contents feature is in beta version.