আমাদের কথা খুঁজে নিন

   

আমার ফ্যান্টাসী পুস্তকেরা--২

ভয় কি মরণে.. ঠাকুরমার ঝুলি'র পর পরবর্তী ফ্যান্টাসী বই জোগার করতে আমার অনেকদিন লেগেছে। এ সময়ে আমি ছোট গল্প, বড় গল্প, পুচকা উপন্যাস ( বাংলাদেশী), বিশাল সাইজের উপন্যাস( ভারতীয়), বড়দের উপন্যাস( তসলীমা নাসরীণ এবং হুমায়ুন আজাদ), কবিতা ( পাঠ্যবই ), সাইন্স ফিকশন, গোয়েন্দা গল্প, ভ্রমন কাহিনী, অনুবাদ আর সেবা প্রকাশনী (এবং কিছু আদিরসাত্বক বই, যেগুলো একটা বয়সে এসে কিভাবে যেনো হাতের নাগালে চলে আসে) সব কিছুই পরলাম কিন্তু ফ্যান্টাসী তো আর হাতের কাছে আসে না। এই সময় জাফর ইকবালের কিছু কিশোর উপন্যাসকে (কাবিল কোহকাফী, মেকু কাহিনী, স্কুলের নাম পথচারী!) ফ্যান্টাসীর কাছাকাছি মনে হলে ও আসল ফ্যান্টাসী পাচ্ছিলাম না, তবে গ্রীক মিথলোজীর একটা বাংলা সংস্করন পেয়েছিলাম "ইলিয়াড ও ওডিসি"; খুবই বাজে অনুবাদ, কিন্তু তখন এটাই ছিলো অনেক। ক্লাস টেনে একবার এক ফ্রেন্ডের কাছে " হ্যারি পটার এন্ড দি ফিলোসফার'স স্টোন" দেখে আমি তো হাসতে হাসতে শেষ। এত বড় ধামড়া পোলা এই বই পড়ে!! সে আমারে বইটা ধরিয়ে দিলো আর বললো নিজে পড়ে তারপর খ্যাক খ্যাক করিস আমি নাক উচা ভাব মেরে বললাম দেখা যাবে হ্যারি পটার এন্ড দি ফিলোসফার'স স্টোন হ্যারি পটার সিরিজটা এখন পুরো বিশ্বের সবচেয়ে পরিচিত মুভি সিরিজ তাই এই গল্পে কি আছে সেটা বলার চেস্টা ফাজলামো মনে হবে তাই সে চেস্টা না করাই ভালো, আমি বলি এই গল্পটা আমার কেন ভালো লেগেছিলো। এই বইয়ের শুরু থেকেই হ্যারি কে আলাদা বলা হয়েছে কারন ভোল্ডেমোরট তাকে তার সমকক্ষ ধরে নিয়েছে। কিন্তু পুরো গল্পের কোথাও আমরা তার কোন প্রমান নেই। হ্যারি স্মার্ট নয়, সে ভালো স্পেল কাস্ট করতে পারে না( অন্তত হারমাইয়োনীর মত না) , সে শুধু কিডিচ খেলায় ভালো কিন্তু সেটা তো ভালো যাদুকরের কোন প্রমান নয়! এই পর্বের শেষে এসে লেখক আমাদের দেখিয়ে দেন আসলে ভালো যাদুকর হওয়ার জন্য শুধু সততা আর দুর্দমণীয় সাহসটাই প্রয়োজন আর প্রয়োজন কিছু ভালো বন্ধু। আরো ভালো লেগেছিলো এই কারনে যে লেখিকা আমাদের জন্য অন্য একটা জগত তৈরি করে দিয়েছেন, যেটা আমাদের চারপাশ থেকে অনেক বেশি আলাদা। আমি জানি না যারা শুধু মুভি দেখেছেন তাদের কি অবস্থা কিন্তু আমি নিশ্চিত যারা বই পড়েছেন তার একবার হলেও "উইজার্ড" না হবার জন্য মন খারাপ হবে। ডাউনলোড লিংক: হ্যারি পটার এন্ড দি ফিলোসফার'স স্টোন ডাউনলোড লিংক ব্লগার নেকা 'র থেকে সংগ্রহীত, কাজ না হলে দায়ভার সম্পুর্ণ তার দ্য চেম্বার অভ সিক্রেট ফিলোসফার'স স্টোন পড়বার পর আমি দ্রুত মুভি ১ আর ২ দেখে ফেললাম আর একটা বিশাল প্রবলেম তৈরি করলাম। মুভি দেখার পর সিদ্ধান্ত নিলাম বই পরতে হবে কিন্তু আশে পাশে কোথাও বইটা পেলাম না পরে খোজ নিয়ে দেখলাম অংকুর প্রকাশনী এখনো বইটা বের করে নি। বইটা অবশেষে বের হলো আমার এস.এস.সি'র পর। রেজাল্টের খুশিতে আমাকে বইটা গিফট করা হলো আমি বইটা পড়ে আবারও সিদ্ধান্ত নিলাম মুভি দেখে কোন লাভ নেই বই পরতে হবে। আপনার যদি ১ম পর্ব ভালো না লাগেও এই পর্ব থেকেই আপনার এই গল্প ভালো লাগা শুরু করবে কারন এই পর্ব থেকেই আমরা ভোল্ডেমর্ট চরিত্রটাকে ভালো ভাবে জানতে শুরু করি, ভোল্ডেমর্টের অতীত, তার চিন্তা ধারা, তার পূর্বসুরী। আর হ্যাগ্রিডের ও অতীতের কিছু ঘটনা, হাউজ এলফ ডব্বি'র গল্প বা ব্যাসিলিঙ্কের সাথে মারামারি আর মাডব্লাড আর স্কুইব এর মানে, শেষ দিকে হারময়োনির প্যাট্রিফাইড হয়ে যাওয়া কিংবা ভোল্ডেমোরট এর নতুন করে আবির্ভাব... সব মিলিয়ে বইটা শেষ না করে উঠা অসম্ভব যারা বাংলা ছাড়া পড়বেন না তাদের জন্য ১ম পর্ব ২য় পর্ব আর যাদের ইচ্ছা আছে দয়া করে ইংরেজীটাই পড়ুন, বাংলা অনুবাদগুলো ভালো না,( ২ পর্যন্ত চলেবল, ৩ হুম, ৪-৭ জঘন্য ) নিলক্ষেতে ৭টা একসাথে ৫৫০/৬০০ নিতে পারে

সোর্স: http://www.somewhereinblog.net     দেখা হয়েছে বার

অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কথা গুলোকেই সহজে জানবার সুবিধার জন্য একত্রিত করে আমাদের কথা । এখানে সংগৃহিত কথা গুলোর সত্ব (copyright) সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের লেখকের এবং আমাদের কথাতে প্রতিটা কথাতেই সোর্স সাইটের রেফারেন্স লিংক উধৃত আছে ।

প্রাসঙ্গিক আরো কথা
Related contents feature is in beta version.