আমাদের কথা খুঁজে নিন

   

তবু হাতড়ে খুজে ফিরি আলো
কোলকাতার অমিত সেনের বাংলা মুভি নটবর নটআউট শুধু এই কারনে দেখতে বসেছিলাম যে ওখানে বাংলাদেশ এর ছেলে মুস্তাফা প্রকাশ অভিনয় করেছে। রবীন্দ্রনাথ কে নিয়ে করা মুভি, তাই কিছুটা expectation ও ছিলো। কিন্তু হতাশ পুরোপুরি। অতন্ত্য ফালতু বাণিজ্যিক ছবিতেও তাহলে রবীন্দ্রনাথ কে দেখান হয়! তাও কিভাবে? কবিগুরু এসে নায়ক কে ১১৬ দিনের offer দিয়ে যান, এই সময়টুকু তে সে অনর্গল কবিতা লিখবে। তারপর শেষ। নাহয় মানলাম, কিন্তু তাই বলে রবীন্দ্রনাথ এর পোট্রেট যার ঘরে রাখা হবে সেই কবি হয়ে যাবে! মানা যাচ্ছে না। যদি নায়ক নটবর শেষ পর্যন্ত কবিতা লিখতো তাহলে রবীন্দ্রনাথ এর প্রতি তার ভালোবাসা দেখানো হত। কবিতা ছেড়ে দিয়ে নায়ক সুখী তার মানে কবিতা আসলে জীবনের জন্য তেমন দরকারি না। কবিতা এবং রবীন্দ্রনাথ কে নিয়ে মশকরা করার জন্য মুভিটি কে মাইনাস। তবে মুস্তাফা প্রকাশ এর অভিনয় সুন্দর হয়েছে। আর ছবির ডায়ালগ গুলোও খুব খারাপ ছিলো না ( কিছু স্ল্যাং বাদে)। পুনশ্চঃ সবাইকে না দেখার পরামর্শ দিচ্ছি।
 

অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কথা গুলোকেই সহজে জানবার সুবিধার জন্য একত্রিত করে আমাদের কথা । এখানে সংগৃহিত কথা গুলোর সত্ব (copyright) সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের লেখকের এবং আমাদের কথাতে প্রতিটা কথাতেই সোর্স সাইটের রেফারেন্স লিংক উধৃত আছে ।

প্রাসঙ্গিক আরো কথা
Related contents feature is in beta version.