আমাদের কথা খুঁজে নিন

   

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম সমুদ্র বন্দর মংলাকে সচল রাখতে এবং এর আধুনিকায়নে ড্রেজিংয়ের কাজ করছে বর্তমান সরকার।

বেপোয়া মানুষ

=================== বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বন্দর নগরী মংলা। পশুর নদীর তীরে ১৯৫০ সালে এই বন্দর প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রাকৃতিকভাবে সাগর গর্ভে জন্ম নেয়া মংলা বন্দর প্রতিদিনই বাংলাদেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্রিয় ভূমিকা রেখে চলেছে। বন্দর সচল রাখতে হিরণ পয়েন্ট থেকে বন্দর জেটি পর্যন্ত নদীর নাব্য ঠিক রাখতে অচিরেই ড্রেজিংয়ের কাজ শুরু করবে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ। এ লক্ষ্যে গ্রুপের সঙ্গে একটি দ্বি-পাক্ষিক চুক্তি সম্পাদন করছে কর্তৃপক্ষ। আগামী ১৮ মাসের মধ্যে ড্রেজিংয়ের কাজে প্রয়োজনীয় সব যন্ত্রপাতি হাতে পাবে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ। বন্দরের চ্যানেল স্থাপিত নেভিগেশন প্রক্রিয়ার আধুনিকায়ন করা হবে। জাহাজ ভেড়ার সুবিধার্তে এ বন্দরকে আরো অত্যাধুনিক করার জন্য এ প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে বহুল প্রত্যাশিত মংলা বন্দর পশুর নদী খননের কার্যাদেশ ইতোমধ্যে প্রদান করেছে মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ। প্রসঙ্গত, বিগত জোট সরকারের আমলে দেশের এই দ্বিতীয় বৃহত্তম গুরুত্বপূর্ণ স্থল বন্দরটি ছিল খুবই অবহেলিত। ফলে দেশের অর্থনীতির চাকা অচল হয়ে পড়েছিল। বর্তমান সরকার অচল চাকাকে ঘুর্নায়নে সফল করেছে।

সোর্স: http://www.somewhereinblog.net     দেখা হয়েছে ১২ বার

অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কথা গুলোকেই সহজে জানবার সুবিধার জন্য একত্রিত করে আমাদের কথা । এখানে সংগৃহিত কথা গুলোর সত্ব (copyright) সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের লেখকের এবং আমাদের কথাতে প্রতিটা কথাতেই সোর্স সাইটের রেফারেন্স লিংক উধৃত আছে ।

প্রাসঙ্গিক আরো কথা
Related contents feature is in beta version.