আমাদের কথা খুঁজে নিন

   

টেলিভিশনে সন্ধ্যা থেকেই শুরু হয় ধারাবাহিক নাটক। এ-চ্যানেল ও-চ্যানেল ঘুরে চলতেই থাকে। বাড়ির জ্যেষ্ঠ সদস্যরাও রাত পর্যন্ত বেশ জমিয়ে দেখেন সেগুলো। এভাবে একটানা ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে থেকে থেকে একসময় কোমর ধরে আসে। কিন্তু টেলিভিশনের সামনে থেকে আর ওঠা হয় না।
আবার সেই সকালে অফিসে ঢুকে ফাইলে মুখ গুঁজে কিংবা কম্পিউটারের সামনে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকতে থাকতেও ব্যথা হয় কোমরে। অফিস কিংবা কাজে তো যেতেই হবে। আবার এত প্রিয় টিভি ধারাবাহিক নাটকগুলোও যে না দেখলেই নয়! কী এমন করা যায়, যেখানে রথও দেখা হবে, আবার কলা বিক্রিও হবে? কথা বলেছিলাম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিজিক্যাল মেডিসিন অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন বিভাগের অধ্যাপক মো. তছলিম উদ্দিনের সঙ্গে। তিনি বললেন, সাধারণত একটানা বসে থেকে কিংবা দাঁড়িয়ে কাজ করলে এ ধরনের ব্যথা হয়। অন্যান্য কারণেও কোমর ব্যথা হতে পারে। প্রতিকার হিসেবে সবচেয়ে ভালো হয়, প্রতি দুই ঘণ্টা অন্তর বিরতি দিতে হবে কাজে। পাঁচ থেকে সাত মিনিট পরে আবার কাজে ফিরলেই হলো। তিনি জানালেন আরও যে কারণে কোমরে ব্যথা হয়—
 অর্ধেক শুয়ে, অর্ধেক বসে একনাগাড়ে বই পড়লে।
 দীর্ঘ সময় বসে তরকারি কিংবা মাছ কাটলে।
 ওজন উত্তোলনের সময় হতে পারে ব্যথা।
 সব সময় সামনের দিকে ঝুঁকে কাজ করার প্রবণতা থাকলে।
 আঘাতজনিত কারণেও ব্যথা হতে পারে কোমরে।
 দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকলে বা বসে থাকলেও ব্যথা হতে পারে।

কোমর ব্যথা এড়াতে
বসার সময় কোমর সুরক্ষিত থাকে, এমনভাবে বসতে হবে। অর্থাৎ ঊরু ও মেরুদণ্ড ৯০ ডিগ্রি কোণ করে বসতে হবে। আর দুই পায়ে একসঙ্গে ভর দিয়ে না দাঁড়িয়ে, এক পায়ে ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে কিছুক্ষণ পর পর পা পাল্টে নিতে হবে। আরও যেসব কাজে সতর্ক হতে হবে, আসুন জেনে নিই—
 দাঁড়ানোর সময় দুই পা খানিকটা ফাঁক করে দাঁড়ালে ভালো।
 হাঁটতে হবে প্রতিদিন।
 হাঁটু সোজা করে ভার উত্তোলন করা যাবে না একদমই।
 খেতে হবে শাকসবজি, ফলমূল।
 বয়স্কদের ক্যালসিয়ামসমৃদ্ধ খাবার খেতে দিতে হবে।
 ঘুমানোর জন্য শক্ত বিছানাকেই প্রাধান্য দিতে হবে।
 ব্যথা থাকলে থাকতে হবে পূর্ণ বিশ্রামে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ ফিজিওথেরাপিস্ট ওমর ফারুক বললেন, কোমর ব্যথা অবহেলায় পুষে না রেখে দ্রুত চিকিৎসা করিয়ে নিতে হবে, প্রয়োজনে নিতে হবে থেরাপি। চাইলে বাড়িতে বসেও কিছু ব্যায়াম করতে পারেন। বাড়িতে বসে কোমরের মাংসপেশি শক্তিশালী করার সহজ এক ব্যায়াম সম্পর্কে জানালেন ওমর ফারুক। শক্ত বিছানায় উপুড় হয়ে শুতে হবে (বুক নিচে, পিঠ ওপরে)। এবার হাত দুটি পেছনে কোমরের ওপর জোড়বদ্ধ করে রাখুন। হাঁটু না ভেঙে এবার এক পা পেছনে তুলে কিছুক্ষণ ধরে রাখতে হবে। পা এবার নিচে নামিয়ে বিশ্রাম নিন। যতক্ষণ পা শূন্যে ধরে রাখলেন, ততটুকু বিশ্রামই যথেষ্ট। এক পা শেষ হলে এবার অন্য পা, ঠিক আগের ভঙ্গিতেই। এভাবে ১০ বার। সবশেষে দুই পা পেছনে তুলতে হবে আগের মতো হাঁটু না ভেঙেই। সঙ্গে মাথাও জাগাতে হবে। শরীর থাকবে ঠিক ধনুকের মতো। এটিও ১০ বার করতে হবে। এটি নিয়মিত করলে কোমরের মাংসপেশি শক্ত হবে। কোমরও হবে দৃঢ়।
 লেখক: চিকিৎসক

সোর্স: http://www.prothom-alo.com     বুকমার্ক হয়েছে বার

অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কথা গুলোকেই সহজে জানবার সুবিধার জন্য একত্রিত করে আমাদের কথা । এখানে সংগৃহিত কথা গুলোর সত্ব (copyright) সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের লেখকের এবং আমাদের কথাতে প্রতিটা কথাতেই সোর্স সাইটের রেফারেন্স লিংক উধৃত আছে ।