আমাদের কথা খুঁজে নিন

   

তিস্তার বিনিময়ে ট্রানজিট : 'নাটক' বললেন ড. আব্দুর রব

ভারতের প্রধানমন্ত্রী ড.মনমোহন সিংয়ের বাংলাদেশ সফরের সময় নানা চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হওয়ার কথা থাকলেও তিস্তা চুক্তি নিয়ে এ ক্ষেত্রে কিছুটা আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। তিস্তা চুক্তি নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির বিরোধিতার কারণে এ অবস্থা তৈরি হয়েছে। মমতা বলেছেন, চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশকে বেশি পানি দেয়া হবে এবং এতে পশ্চিম বঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তবে, গতরাত পর্যন্ত বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী চুক্তি সইয়ের বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশের বিশিষ্ট ভূগোলবিদ ও মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভারসিটির ভাইস চ্যান্সেলর ড. আব্দুর রব বলেছেন, "ট্রানজিটকে যুক্ত করে কেউ কেউ আত্মপ্রসাদ করছে। বলা হচ্ছে-ট্রানজিট নিয়ে দর কষাকষি চলছে এবং এর বিনিময়ে তিস্তার পানি আদায়ের চেষ্টা হচ্ছে। কিন্তু, এটা একটা কূটকৌশল ও নাটক। তিস্তা চুক্তিটিকে সামনে রেখে ট্রানজিটের বিষয়ে দরকষাকষি করা হচ্ছে। আসলে সরকার ট্রানজিটও দেবে আবার ভারতের ইচ্ছা মতো তিস্তা চুক্তিও করবে। বাস্তবে দেখানো হচ্ছে- তিস্তার পানির বিনিময়ে ট্রানজিট দেয়া হচ্ছে।" ড. রব বলেন, তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যা বাংলাদেশের অধিকার। এ জন্য ভারতকে কিছু দেয়ার দরকার নেই। তবে, তিস্তার পানি নিয়ে যদি ফিফটি-ফিফটি চুক্তি হয় তাহলেও খারাপ নয়। অন্যদিকে, ট্রানজিট ভারতের বাণিজ্য ও নিরাপত্তার জন্য দরকার। এর সঙ্গে তিস্তার পানি বিনিময় হতে পারে না বলে সু্স্পষ্ট অভিমত দিয়েছেন ড. আব্দুর রব। সূত্র- এখানে

সোর্স: http://www.somewhereinblog.net     দেখা হয়েছে ১০ বার

অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কথা গুলোকেই সহজে জানবার সুবিধার জন্য একত্রিত করে আমাদের কথা । এখানে সংগৃহিত কথা গুলোর সত্ব (copyright) সম্পূর্ণভাবে সোর্স সাইটের লেখকের এবং আমাদের কথাতে প্রতিটা কথাতেই সোর্স সাইটের রেফারেন্স লিংক উধৃত আছে ।

প্রাসঙ্গিক আরো কথা
Related contents feature is in beta version.